মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭


‘তামিম–মোস্তাফিজ না খেললে আমাদেরই সুবিধা’


সংবাদ সমগ্র - 22.10.2017

সিরিজ জিতে গেলে কী হয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশকে ছাড় দিতে চায় না শেষ ম্যাচেও। বাংলাদেশে গিয়ে বাংলাদেশের কাছে সর্বশেষ সিরিজ ২-১ ব্যবধানে হেরেছে প্রোটিয়ারা। এবার নিজেদের মাঠে বাংলাদেশকে পেয়ে তারা শোধ তুলতে চায় ৩-০ ব্যবধানে জিতে।

হাশিম আমলাকে আজকের শেষ ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হচ্ছে। তাঁর পরিবর্তে যিনি স্কোয়াডে এলেন, সেই এইডেন মার্করাম কাল সকালে অনেকটা সময় বাফেলো পার্কের মাঝ উইকেটে ছক্কা মারার অনুশীলন করলেন। পরে মারকাটারি ব্যাটিংয়ের অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন ফাফ ডু প্লেসিও। এবি ডি ভিলিয়ার্স সেটার দরকার মনে করেননি। ঐচ্ছিক অনুশীলন ছিল বলে মাঠেই এলেন না!
দক্ষিণ আফ্রিকা দলের অনুশীলনই বলে দিচ্ছে, শেষ ম্যাচটাতেও তারা লন্ডভন্ড করে দিতে চায় বাংলাদেশকে। অনুশীলন শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে এসে জেপি ডুমিনিও ইচ্ছাটা গোপন করেননি, ‘ভালো একটা অনুভূতি নিয়ে আমরা সিরিজ শেষ করব-এই আলোচনাটা নিজেদের মধ্যে সিরিজ শুরুর আগেই করেছি। ওটা এখনো আমাদের মূল লক্ষ্য। আমরা দুটি অসাধারণ ম্যাচ খেলেছি, তার মানে এই নয় যে আমরা লক্ষ্য থেকে সরে গেছি। আমাদের লক্ষ্য এখনো মাঠে গিয়ে ভালো খেলা এবং ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জেতা।’
লক্ষ্যটা এমনি এমনি পূরণ হয়ে যাবে না বলেই মনে করেন দক্ষিণ আফ্রিকার এই ব্যাটসম্যান। প্রথম দুই ম্যাচ সহজে জিতলেও ওয়ানডের বাংলাদেশ নিয়ে এখনো সতর্ক মনে হলো ডুমিনিকে, ‘বাংলাদেশ এমন একটা দল, যারা সব সময়ই সেরাটা দিতে চায়। তাদের বিপক্ষে কিছু ক্ষেত্রে সব সময়ই আমাদের চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়তে হয়। গত দুই ম্যাচে আমরা এই দিকগুলো নিয়ে সচেতন থেকেছি। কালও (আজ) আমরা ওরকম মানসিকতা নিয়ে খেলতে নামব।’
পুরো সিরিজেই বাংলাদেশকে কোণঠাসা করে রেখেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে ডুমিনি কিন্তু মনে করেন না বাংলাদেশ খুব খারাপ খেলেছে। তাঁর মতে, বাংলাদেশ ভালোই খেলেছে, তবে দক্ষিণ আফ্রিকা খেলছে তার চেয়েও ভালো, ‘ছোট সংস্করণের ক্রিকেটে বাংলাদেশ সব সময়ই চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো দল। কিন্তু গত দুই ম্যাচে আমরা যেভাবে আমাদের কাজগুলো করতে পেরেছি, তাতে আমি আসলেই খুব খুশি।’ আলাদা করে বললেন ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিংয়ের কথা। প্রতিটি বিভাগেই লক্ষ্যপূরণে সর্বোচ্চ মনোযোগ ছিল খেলোয়াড়দের। তাতে নিজেদের সফলও মনে করেন ডুমিনি। শেষ ম্যাচেও ধরে রাখতে চান সেটার ধারাবাহিকতা, ‘আমার ধারণা বাংলাদেশ শেষ ম্যাচে নিজেদের প্রমাণের একটা চেষ্টা চালাবে। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজজুড়েই তাদের ওপর আধিপত্য বিস্তার করছে এবং আমরা সেটা শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে চাই। আগেই বলেছি, আমাদের লক্ষ্য সিরিজটা ৩-০ ব্যবধানে শেষ করা।’
দক্ষিণ আফ্রিকার কাজটা আরেকটু সহজ করে দিচ্ছে তামিম ইকবাল আর মোস্তাফিজুর রহমানের অনুপস্থিতি। ঊরুর চোট নিয়ে কাল দুপুরের বিমানে দেশে ফিরে গেছেন তামিম। বিশ্রামে আছেন মোস্তাফিজও। আজ ওয়ানডে সিরিজ শেষ হলে কাল মাশরাফি বিন মুর্তজার সঙ্গে তাঁর দেশে ফেরার কথা। তামিম, মোস্তাফিজের যুগল অনুপস্থিতিতে সুবিধাই দেখছেন ডুমিনি, ‘বাংলাদেশের জন্য এটা বড় ক্ষতি। দুজনই তাদের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। তারা না খেললে আমাদেরই সুবিধা।’




Loading...
সর্বশেষ সংবাদ


Songbadshomogro.com
Contact Us.
Songbadshomogro.com
452, Senpara, Parbata, Kafrul
Mirpur, Dhaka-1216


close