শুক্রবার ২০ অক্টোবর ২০১৭


তুফানকে নিয়ে ফেসবুকে ‘তুফান’


সংবাদ সমগ্র - 31.07.2017

ভালো কলেজে ভর্তির প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণ ও পরে মাসহ তাকে ন্যাড়া করে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে বগুড়ার শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় তুফানসহ নয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
এদিকে ওই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত তুফান সরকার ও তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছেন বিভিন্ন পেশার মানুষ। তুফানের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস, কমেন্ট ও ছবি পোস্ট দিচ্ছেন তারা। যে যার মতো করে জানাচ্ছেন ঘটনার প্রতিবাদ।
গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার তার ফেসবুকে লিখেছেন, “শ্রমিকলীগ নেতার মধ্যযুগীয় বর্বরতার প্রতিবাদ করায় আমার ওপর বেশ চটেছেন ধর্ষকামী বেশকিছু নেতা-পাতিনেতা, দালাল, চামচা-চামুণ্ডারা। কেউ বলছেন আমি মিথ্যা বলছি, ধর্ষণ হয়নি। কেউ বলছেন ধর্ষকের দল উল্লেখ করা উচিত নয়। আবার কেউ বলছেন ধর্ষক তাদের দলের নয়। তাদের একজন আবার ফতোয়া দিলেন আমার উচিত লেখা বন্ধ করে আন্দোলন করা। বাহ!


আমি জবাব দিলাম:
জি, ধর্ষকের বিচারের দাবিতে আন্দোলন করবো। কি স্লোগান দেবো ঠিক করে দিন। বক্তব্য কি দেবো সেটাও ঠিক করে দিন। স্লোগান, বক্তব্য পছন্দ না হলে তো আবার মামলা করবেন। মামলার হাজিরা দিতে আদালতে গেলে হামলা করবেন! বেশি কথা বললে হয়তো গুমই করে দেবেন। প্রতিবাদের পথ তো আপনারাই বন্ধ করে দিয়েছেন।”
তুফানকে নিয়ে ফেসবুকে ‘তুফান’
স্বেচ্ছাসেবীকর্মী মাহমুদ এইচ হাসান তার স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘ধর্ষণের শিকার কিশোরী ও তার মায়ের ন্যাড়া মাথার ছবি ভাইরাল করে ভার্চুয়ালি মাসুম মেয়েটির বাকি লাইফ বরবাদ করবেন না। ধর্ষক তুফান এবং তার সহযোগীর ছবি ছড়িয়ে দিন। যারা ধর্ষণের বিচার করবে মর্মে ভিক্টম ও তার মাকে তুফানের শশুর বড়িতে ডেকে নিয়ে বেধরক পিটিয়েছে, প্রস্টিটিউশনের মত জঘন্য অপবাদ দিয়ে মা ও মেয়ের মাথা মুন্ডিয়ে দিয়েছে। সেই ধর্ষকের স্ত্রী আশা, তার বড় বোন পৌরসভার সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর রুমকি এবং তার মা রুমী বেগমের ছবি ছড়িয়ে দিন। ভিক্টিমের চেহারা নয়। দেশবাসী দেখুক- রেপিস্ট এবং সেই সব নির্যাতনকারী নারী নামের নিকৃষ্ট জীবদের ছবি। নো মার্সি, হ্যাং দ্যা ব্লাডি রেপিস্ট!!’
সংবাদকর্মী মাকসুদুন নবী তার স্ট্যাটাসে বলেন, ‘সংবাদের মূল্যমানের অন্যতম নির্ধারক হলো ‘নৈকট্য’। ধর্ষণের মতো বড় অপরাধের বেলায় কী সেটি প্রযোজ্য হবে? যদি না হয়, তাহলে ১৯০ কিলোমিটার দূরত্বের কারণে বগুড়ার ধর্ষণের ঘটনা ঢাকার গণমাধ্যমে ঢাকার ধর্ষণের ঘটনার মতো গুরুত্ব পায় না কেন? এখানে মূলত ‘নৈকট্য’ নয়, বরং ঘটনার ‘প্রভাব’ ও ‘গুরুত্ব’ এর ভিত্তিতে সংবাদটির মূল্যমান নির্ধারিত হওয়ার কথা।’
ঢাকায় বাসবাসকারী টুম্পা ধর বলেন, ‘মেয়ের ধর্ষণের প্রতিবাদে মা মামলা করেছে। আর এতেই ধর্ষক তুফানের সহযোগী ও তুফানের বউ, শালী, শাশুড়ি মিলে দেখিয়ে দিল তুফান যে আসলেই কি জিনিস। এখানে জানোয়ারের শিকার নারী। আবার সেই জানোয়ারের সহযোগীরাও নারী। একজন ধর্ষকের পক্ষ হয়ে নারীরাই নারীকে আঘাত করেছে, করেছে জঘন্যতম অপমান। এবার আর চুল ছিড়াছিড়ি না একেবারে ন্যাড়া করে দিয়েছে সেই মা-মেয়েকে। কোন বিবেকে বা আবেগে আপ্লুত হয়ে এই সব প্রলয়ংকরী মহিলারা এই কাজটি করলো এর কোন সঠিক বিশ্লেষণ এই সব খাটাসদের পক্ষে দেয়া সম্ভব না।’
‘তুফানেরা ছুটছে। তাদের গতি আরও বাড়বে। তুফানদের থামাবে কে?’- দৈনিক প্রথম আলোর নোয়াখালী প্রতিনিধি মাহবুব রাহমান এমন স্ট্যাটাস দেন।
কবীর চৌধুরী তন্ময় ব্যাঙ্গাত্মকভাবে বলেন, ‘এখানে এটা জিনিস ভেবে দেখার বিষয়, ২০১৫ সালে দুই বস্তা ফেনসিডিল ও বিপুল পরিমাণ টাকাসহ র্যাবের হাতে গ্রেফতার তুফান ঠিক তুফানের মতই শ্রমিক লীগে যোগদান করলে সেখানে ধর্ষণ, কোটি টাকার চাঁদাবাজি, লুটপাট, তুফান বাহিনী গঠনসহ নানান অপরাধ করাটা কী যৌক্তিক নয়..?
বগুড়ার বাসিন্দা জান্নাত লিন্ডা বলেন, ‘তুফানের মত কুকুরের জন্য বলতে লজ্জা হচ্ছে- আমি বগুড়ার মেয়ে..’।




Loading...
সর্বশেষ সংবাদ


Songbadshomogro.com
Contact Us.
Songbadshomogro.com
452, Senpara, Parbata, Kafrul
Mirpur, Dhaka-1216


close