শনিবার ২৪ জুন ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » Box 2 » সৌদি-মার্কিন চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ারমূল্যে রেকর্ড বৃদ্ধি


সৌদি-মার্কিন চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ারমূল্যে রেকর্ড বৃদ্ধি


সংবাদ সমগ্র - 23.05.2017

রাশিদ রিয়াজ: সৌদি আরবের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ৩৫ হাজার কোটি ডলার অস্ত্র বিক্রি চুক্তির পর ৩টি মার্কিন অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার এযাবতকালের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে। ওই চুক্তির পর যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে প্রথম দিনের লেনদেনে বাজার চাঙ্গা হয়ে ওঠে ও ৩টি মার্কিন অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার মূল্য রেকর্ড পরিমান বৃদ্ধি পায়। এ তিনটি প্রতিষ্ঠানের অন্যতম হচ্ছে লকহিড মার্টিন এবং এ প্রতিষ্ঠানটি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সৌদি আরব সফরের সময় ৬ হাজার কোটি ডলার খরচে দেড়’শ বøাক হক হেলিকপ্টার তৈরির চুক্তি করে। ডিফেন্স নিউজ ডটকম


সৌদি-মার্কিন অস্ত্রচুক্তি অনুয়ায়ী প্রাথমিকভাবে ১১ হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র কিনবে সৌদি আরব। তবে আগামী ১০ বছরে এ অস্ত্র চুক্তি বেড়ে দাঁড়াবে ৩৫ হাজার কোটি ডলারে। এর প্রভাব মার্কিন শেয়ারবাজারে স্বাভাবিকভাবেই পড়েছে এবং লকহিড মার্টিন ছাড়াও আরো দুটি মার্কিন অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠান নর্থগ্রæপ গ্রামম্যান ও রেথিয়ন’এর শেয়ারমূল্য বাজারকে চাঙ্গা করছে যাকে বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন অভ‚তপূর্ব উচ্চতা। ২০০৯ সালের পর মার্কিন শেয়ার বাজারে অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার মূল্য বৃদ্ধি ঘটেছে কোনো কোনো ক্ষেত্রে ৩৬ গুণ বেশি।

ট্রাম্প সৌদি আরব সফরে যে অস্ত্র চুক্তি করেছেন এবং এর ফলে যে পরিমাণ অস্ত্র যুক্তরাষ্ট্র সৌদি আরবে বিক্রি করবে তা সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার শাসনামলে সৌদিতে বিক্রিত অস্ত্রের চেয়ে পরিমাণে বেশি এবং ইয়েমেনে জাতিসংঘের অনুমোদন ছাড়া সৌদি আগ্রাসন ও বিমান হামলায় হতাহতের ঘটনায় ওবামা প্রশাসন দেশটির কাছে আরো অস্ত্র বিক্রি না করার যে সিদ্ধান্ত নেয় তার পরিপন্থি। ইয়েমেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বো মনসুর হাদি ক্ষমতাচ্যুত হবার পর সৌদি আরবে আশ্রয় নিয়েছেন এবং তাকে ফের ইয়েমেনের ক্ষমতায় বসানোর জন্যে সৌদি আরব ইয়েমেনে আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে।
মার্কিন ওই তিনটি অস্ত্র তৈরি প্রতিষ্ঠানের বাজার সূচক যুক্তরাষ্ট্রের গত নির্বাচনের পর থেকে পড়তির দিকেই ছিল এবং তা ৫০০ সূচেকের নিচে অবস্থান করছিল। এ তিনটি প্রতিষ্ঠান জঙ্গি বিমান, ক্ষেপণাস্ত্র ও মহাকাশ যুদ্ধাস্ত্র, যুদ্ধজাহাজ তৈরি করে থাকে।
এদিকে মার্কিন মিডিয়া সিএনবিসি বলছে, ডিফেন্স স্টক যে কোনো সময়ের চেয়ে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে সৌদি আরবের সঙ্গে এই অস্ত্রচুক্তির পর। সিএনবিসি বিশ্লেষক বলছেন, যে ধরনের মার্কিন অস্ত্র সৌদি আরবে বিক্রির চুক্তি হয়েছে তাতেই যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ প্রতিরক্ষা কোম্পানি ইটিএফ’র সূচক ৩ দশমিক ৩ পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। সবচেয়ে বেশি শেয়ার মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে লকহিড মার্টিনের। ট্রাম্পের সৌদি সফরের সময় বোয়িং দেশটির কাছে সেনা পরিবহনের জন্যে বিমান বিক্রির চুক্তি করে। এ প্রতিষ্ঠানটিরও বাজার সূচক ১ পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। বেড়েছে জেনারেল ডিনামিক্সের শেয়ার মূল্য।




Loading...
সর্বশেষ সংবাদ


Songbadshomogro.com
Contact Us.
Songbadshomogro.com
452, Senpara, Parbata, Kafrul
Mirpur, Dhaka-1216


close