বৃহস্পতিবার ২৪ অগাস্ট ২০১৭
  • প্রচ্ছদ » Box 2 » ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হলেও চিকিৎসকদের ঢালাও দোষ দেওয়া ঠিক নয় : এহতেশামুল হক


ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হলেও চিকিৎসকদের ঢালাও দোষ দেওয়া ঠিক নয় : এহতেশামুল হক


সংবাদ সমগ্র - 21.05.2017

তরিক ইমন : বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব ডা. এহতেশামুল হক চৌধুরী বলেছেন, রোগীর মৃত্যু হলে ঢালাওভাবে চিকিৎসককে দোষ দেয়া হয়। বলা হয়, ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে। রোগীর অভিভাবকদের কথার ওপর ভিত্তি করে গণমাধ্যমও তা ফলাওভাবে প্রকাশও করে। আমরা আশ্চর্য হই! আমার প্রশ্ন হলো, চিকিৎসা যদি ভুল হয় তবে একজন সাধারণ মানুষ কী করে বুঝলো। তিনি তো ডাক্তার নয়। আর যদি তারা বুঝতেই পারেন তবে চিকিৎসার জন্য রোগীকে কেন হাসপাতালে নিয়ে আসেন?


বিবিসি বাংলার এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে বলে কেউ যদি সন্দেহ করেই থাকে তবে বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল রয়েছে। যে কেউই সেখানে অভিযোগ করতে পারেন। তারা এ বিষয়ে তদারকি করে সিদ্ধান্ত নেবেন। এ বিষয়ে বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল বরাবর বিজ্ঞপ্তি দিয়ে আসছে।
ঢাকা সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ওই হাসপাতালে ভঙ্গচুরের ঘটনা ঘটে। চিকিৎসকদের অবহেলায় ওই ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে কর্তব্যরত চিকিৎসকসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার সারাদিন প্রাইভেট হাসপাতালে বন্ধ থাকবে। এছাড়া চিকিৎসকরা দুইদিন মানববন্ধন ও কালো ব্যাচ ধারণের মতো কর্মসূচী ঘোষণা করেছেন। শনিবার রাতে চিকিৎকদের সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সরা বিশ্বের চিকিৎসকদের প্রেক্ষাপটে এহতেশামুল হক চৌধুরী বলেন, সারা পৃথিবীর হাসপাতালেই চিকিৎসদের হাতে রোগী মারা যায়। হাসপাতালে আমরা রোগীদের চিকিৎসা দেই, রোগীর বাঁচা-মরা আমাদের হাতে নাই। রোগীর যদি আয়ু না থাকে তাহলে তাকে বাঁচানো সম্ভব নয়।
গণমাধ্যমকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে, যারা ফলাও করে এসব করে প্রচার করেন তারা আসলে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করছেন। চিকিৎসক এবং রোগীদের মাধ্যে একটা আস্থাহীনতার পরিবেশ তৈরি করেন।
ভুল চিকিৎসার অভিযোগে রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে হাসপাতালে ভাংচুরের বিষয়ে তিনি বলেন, এমন আচরণ রীতিমত সন্ত্রাসী কর্মকাÐ বলা যায়। আমাদের কষ্ট লাগে ‘যে বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তিযুদ্ধের সূতিকাগার হিসেবে পরিচিত সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু ছাত্র চিকিৎসকের ওপর চড়াও হয়, ভাংচুর করে। তাকে মেডিকেল থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত।
একদিন প্রাইভেট চিকিৎসা সেবা বন্ধ রাখা হলে রোগীর চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হবে সত্তে¡ও এ ধরনের কর্মসূচী কেন নেয়া হচ্ছে?
এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। আমরা আর কত মার খাব? সেবা করতে এসে যদি আমরা মার খাই তাহলে সেটা দুঃখজনক। মার খাওয়ার জন্য তো আমরা সেবা করতে আসিনি। আপনি যদি আপনার অধিকার সম্পর্কে সচেতন থাকেন, আমিও আমার অধিকার সম্পর্কে সচেতন হবো।
মঙ্গলবারে বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে কাজ বন্ধ থাকবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, হাসপাতালের সাথে এর কোন সম্পর্ক নেই। প্রাইভেট চেম্বার যাদের আছে, যারা বিকালবেলা চেম্বারে প্রাকটিস করে, যে সকল জেনারেল প্রাকটিশিয়ান সকালবেলা প্রাইভেট চেম্বারে প্রাকটিস করেন সে প্রাইভেট চেম্বারগুলোতে রোগী দেখা বন্ধ থাকবে। বিবিসি বাংলা




Loading...
সর্বশেষ সংবাদ


Songbadshomogro.com
Contact Us.
Songbadshomogro.com
452, Senpara, Parbata, Kafrul
Mirpur, Dhaka-1216


close